প্রকল্প সমূহ

কৃষকের ডিজিটাল ঠিকানা
ডিজিটাল টাচ স্ক্রিন হোয়াইট বোর্ড

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ‘ই-সার্ভিস ডেলিভারি’


প্রচলিত ব্যবস্থায় দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে সিটি কর্পোরেশনের সেবা নেওয়ার বিপরীতে অবস্থান এই ‘ই-সার্ভিস ডেলিভারি’ প্রকল্পের। এ টু আই-এর সার্ভিস ইনোভেশন ফান্ডের আওতায় রংপুর সিটি কর্পোরেশনে এই প্রকল্প চলমান থাকলেও এটা সম্পন্নের পর আইডিয়াটি অন্যান্য সিটি কর্পোরেশনেও ছড়িয়ে দেওয়া সম্ভব হবে। মোবাইল এসএমএস কিংবা ই-মেইলের মাধ্যমে নাগরিকরা মা ও শিশুর টিকা, যে কোন ধরনের বকেয়া প্রভৃতির তথ্য পেয়ে যাবেন।

চিহ্নিত সমস্যা এবং প্রস্তাবিত সমাধান

বাংলাদেশে মা ও শিশু মৃত্যু প্রতিরোধে প্রয়োজন সচেতনতা বৃদ্ধি। সেজন্য সরকারের সেবা সম্পর্কে তথ্য জানা গুরত্বপূর্ণ হলেও সে সম্পর্কে সাধারণ মানুষ সবসময় অবহিত থাকেন না। সাধারণ মানুষের নিকট সেবা সম্পর্কে কোন তথ্য বা সেবা সহায়িকা সহজলভ্য না হওয়ায় এমনটি ঘটে। মধ্যস্বত্ত্বভোগীরা এই অবস্থার সুযোগ নিয়ে সাধারণ মানুষকে হয়রানি করতে পারে। ফলে সার্ভিস প্রদান বিষয়ে জনসাধারণের মধ্যে একটি বিরূপ ধারণা সৃষ্টি হয়। দরিদ্র জনগণ অনেক সময় হয়রানির জনগণ সঠিক স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিতও হন।

এর সমাধানে রংপুর সিটি কর্পোরেশন একটি ওয়েব এবং মোবাইল অ্যাপ্লিক্যাশন তৈরি করেছে, যার মাধ্যমে সেবাগ্রহিতা তাদের ঘরে বা যে কোনখান থেকে ইন্টারনেটের সহায়তায় সেবা গ্রহণ করতে পারবে। এই সিস্টেমে নাগরিকগণ একটি অনলাইন আবেদন ফরম পূরণ করবে। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার এ বিষয়ে প্রান্তিক/দরিদ্র জনগণের সাহায্যে আসতে পারে। সফলভাবে সেটা পুরণের পর SMS নোটিফিকেশন এবং প্রয়োজনীয় জবাব সংক্রান্ত ইমেইল প্রেরিত হবে। সমাধান ইমেইলে প্রেরণের ফলে নাগরিকগণ সিটি কর্পোরেশনে না এসে বা লম্বা লাইনে না দাঁড়িয়ে তার প্রত্যাশিত সেবা গ্রহণ করতে পারবে।